নুসরাত ধোয়া তুলসি পাতা ছিল না, প্রিন্সিপালকে নিয়ে পোস্ট ভাইরাল!


Published: 2019-04-13 21:34:37 BdST, Updated: 2019-06-19 01:36:18 BdST

ফেনী লাইভ: আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করা সেই নুসরাত জাহান রাফিকে নিয়ে এবার আপত্তিকর মন্তব্যের একটি পোস্ট সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ফেনী সরকারি জিয়া মহিলা কলেজের প্রিন্সিপাল তাহমিনা বেগম এমন মন্তব্য করেছেন বলে এক ছাত্রী ফেইসবুকে পোস্ট দিয়েছেন।

এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ঝড় বইছে। তাহমিনা রুমি নামে ওই ছাত্রী ফেইসবুকে তার পোস্টে বলেন, নুসরাত মেয়েটা ধোয়া তুলসী পাতা ছিল না এমন মন্তব্য করেছেন প্রিন্সিপাল। মেয়েটার সাথে যেটা হয়েছে এর জন্য সেই দায়ী। ম্যাডামের কাছে মানববন্ধনের অনুমতি নিতে গেলে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

তবে বিষয়টি অস্বীকার করেছেন ওই কলেজের প্রিন্সিপাল তাহমিনা বেগম। তিনি বলেন, শনিবার কয়েকজন মেয়ে আমার কাছে এসে মানববন্ধনের অনুমতি চেয়েছিলেন এটা সত্য তবে আমি নুসরাতকে নিয়ে কোন বাজে মন্তব্য করিনি। বরং আমি এটা বলেছি যেহেতু বিষয়টি খোদ প্রধানমন্ত্রী দেখছেন তাই এনিয়ে মানববন্ধনের কি দরকার। এটুকুই বলেছি। নুসরাতকে আপত্তিকর মন্তব্যের বিষয়ে ফেইসবুকে যে মেয়েটি পোস্ট দিয়েছে তার ব্যাপারে খোঁজ নিচ্ছি। আমি তাকে চিনি না। তাকে শনাক্ত করার চেষ্টা করছি।

ছাত্রীরা অভিযোগ করেন, শনিবার ফেনীর সোনাগাজীর আলোচিত ঘটনা নুসরাত জাহান রাফি হত্যার বিচারের দাবীতে তারা মানববন্ধন করতে চাইলে অনুমতি দেননি ফেনী কলেজের ওই প্রিন্সিপাল। এসময় তিনি শিক্ষার্থীদের নিরুৎসাহিত করে নুসরাতকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করেন।

সরকারি জিয়া মহিলা কলেজের ছাত্রী তাহমিনা রুমি ও স্নিগ্ধা জাহান রিতা এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে একটি পোস্ট দিলে সেটি ভাইরাল হয়ে যায়।

ফেসবুকে তারা লিখেছেন, আজ নুসরাত হত্যার বিচার দাবিতে ফেনী সরকারি জিয়া মহিলা কলেজ এর ব্যানারে আমরা একটা মানববন্ধন করতে আমাদের কলেজ প্রিন্সিপাল তাহমিনা বেগম ম্যাডামের কাছে অনুমানিক সকাল ৯ টায় অনুমতির জন্য গিয়েছিলাম। তারপর ম্যাডাম যা বললেন তা শুনার জন্য প্রস্তুত ছিলাম না কেউ। ম্যাডাম বললেন, নুসরাতকে তার স্যার বলছিল পরীক্ষার আগে প্রশ্ন দেবে তাই নুসরাত নিজ ইচ্ছায় স্যারের কাছে গিয়েছিল।

অথচ এতোদিন ধরে আমরা জেনে আসছি কলেজের পিয়নকে দিয়ে নুসরাতকে ডাকা হয়েছে। তবে কি আমরা এতোদিন ভুল জানতাম? আমাদের কাছে ভুল তথ্য দিয়েছে মিডিয়া? এসকল প্রশ্নের উত্তর জানতে ইচ্ছা হয়। কে দিবে এই উওর? কোথায় পাবো সে উত্তর?

ম্যাডাম আরো বলেছিলেন, অতীতে এ ধরনের ঘটনা ঘটেনি। বর্তমানে ঘটছে, কারণ বর্তমান মেয়েরা অনেক লোভী। এটার জন্য মানববন্ধন করতে আমি কখনোই অনুমতি দেব না।

এদিকে বিষয়টি জানতে প্রিন্সিপাল তাহমিনা বেগমকে ফোন করা হলে তিনি তা রিসিভ করেননি। পরে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

 


ঢাকা, ১৩ এপ্রিল (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।