ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি করার অভিযোগে তদন্ত কমিটি


Published: 2018-07-22 21:36:48 BdST, Updated: 2018-08-19 23:55:21 BdST

চবি লাইভ: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তি ও বিশ্ববিদ্যালয় লণ্ডভণ্ড করার আহ্বান জানিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ার অভিযোগে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। আগামী সাত কর্মদিবসের মধ্যে কমিটিকে সুপারিশসহ তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতেও বলা হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তিকারী অভিযুক্ত দুই শিক্ষকরা হলেন, সমাজতত্ত্ব বিভাগের অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর মো. মাইদুল ইসলাম ও যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর খ. আলী আর রাজী।

রবিবার তদন্ত কমিটি গঠনের বিষয়টি নিশ্চিত করে বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কেএম নুর আহমদ ক্যাম্পাসলাইভকে জানান, ১৯ জুলাই কমিটি গঠন করা হয়েছে। তবে সাপ্তাহিক বন্ধ থাকায় আজ তদন্ত কমিটির সদস্যরা চিঠি পেয়েছেন। দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ এসেছে, তা তদন্ত করে ভিসির কাছে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সূত্রে জানা গেছে, আইন অনুষদের ডিন প্রফেসর এবিএম আবু নোমানকে আহ্বায়ক, সহকারী প্রক্টর মিজানুর রহমানকে সদস্য এবং ডেপুটি রেজিস্ট্রার মো. হাছান মিয়াকে সদস্য সচিব করে উক্ত তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

উল্লেখ্য গত মঙ্গলবার (১৭ জুলাই) ওই দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়া ও বিশ্ববিদ্যালয়কে লণ্ডভণ্ড করে দেয়ার অভিযোগে এনে তাদেরকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে ছাত্রলীগ।

অভিযুক্ত ওই শিক্ষকদের চাকরিচ্যুতির দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীকে একটি স্মারকলিপিও দেয় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। এতে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ আলমগীর টিপুর স্বাক্ষর রয়েছে। এর প্রেক্ষিতেই গঠিত হলো তদন্ত কমিটি।

 

ঢাকা, ২২ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।