ছয় ছাত্রীকে ‘ভূতে’ ধরা নিয়ে তুলকালাম!


Published: 2018-07-20 19:20:53 BdST, Updated: 2018-10-18 15:59:06 BdST

রাঙ্গামাটি লাইভ: ছয় ছাত্রীকে ‘ভ‚তুলকালাম অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। কাউখালী উপজেলার কলমপতি ইউনিয়নের বড়ডুলু পাড়ায় মৈত্রী শিশু সদনে এমন কাণ্ড ঘটেছে। ওই ছাত্রীরা অস্বাভাবিক আচরণ করায় তাদের ঝাড়ফুঁক দেয়া হচ্ছে।

তবে অভিযোগ উঠেছে ওই ছাত্রীরা শিশু সদনে যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন তাই তারা এমন আচরণ করছেন। আর বিষয়টি ধামাচাপা দিতে ‘ভূতের’ নাটক সাজানো হয়েছে। তাদের ডাক্তারের কাছে না নিয়ে কবিরাজের কাছে নিয়ে ‘ভূত’ তাড়ানোর চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

ইউএনও এএম জহিরুল হায়াত বলেন, এটা অবিশ্বাস্য। চিকিৎসকের কাছে না আসায় বিষয়টি সন্দেহের সৃষ্টি করেছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সুইমিপ্রু রোয়াজা বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখতে পাঁচ সদস্যের একটি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান চৌধুরী ঘটনাস্থলে পরিস্থিতি দেখে মন্তব্য করেন কিছু লুকাতেই হয়তো চিকিৎসকের কাছে আনা হচ্ছেনা।

জানা গেছে, ওই ৬ ছাত্রী মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। তাদের দুই হাতসহ বিভিন্ন স্থানে বেত্রাঘাত করায় ফুলে আছে। ওই ছাত্রীরা ক্ষণে ক্ষণে খিঁচুনি দিয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলছে। ভান্তেকে (প্রধান শিক্ষক) খেলেই আঁৎকে উঠছে। চিৎকার করছে। কেঁদে উঠছে।

শিশু সদনের প্রতিষ্ঠাতা স্থানীয় ইউপি মেম্বার পাইচামং মারমা বলেন, ‘মেয়েদের ভূতে ধরেছে। মৌলভি ও বৈদ্য (কবিরাজ) দিয়ে ঝাড়ফুঁক দিয়ে ভূত তাড়ানোর চিকিৎসা করছি। একটু ভালো হলেই তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাবো’।

শিশু সদনের প্রধান শিক্ষক অংচিনু মারমা বলেন, তিনদিন ধরে অবস্থার পরিবর্তন দেখছিনা। আমাকে দেখলেই মেয়েরা ভয় পাচ্ছে। মনে হচ্ছে মেয়েদের ভূতে ধরেছে। এখন বৈদ্যের চিকিৎসা চলছে। ভীত অনেক শিক্ষার্থীকে এরইমধ্যে পরিবারের কাছে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি

 

 


ঢাকা, ২০ জুলাই (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

 

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।