ফেব্রুয়ারিতে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা


Published: 2019-01-07 17:05:28 BdST, Updated: 2019-01-19 19:23:21 BdST

লাইভ প্রতিবেদক: নির্বাচনের জন্যে কত কিছুই স্থগিত রাখা হয়েছিল। এর মধ্যে সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষাটা ছিল নির্বাচনের একদম কাছাকাছি। তাই এটিও স্থগিত রাখা হয়েছিল। তবে আসছে ১ ফেব্রুয়ারি ‘সহকারী শিক্ষক’ নিয়োগের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতে পারে। এটি এমসিকিউ পদ্ধতির লিখিত পরীক্ষা হবে। এছাড়া পরবর্তী দুই মাসের মধ্যে মৌখিক পরীক্ষার শেষ করা হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়।

এ ব্যাপারে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ড. এ এফ এম মনজুর কাদির গণমাধ্যমকে বলেন, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক সঙ্কট নিরসনে ১২ হাজার শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করা হয়। ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসে নিয়োগ পরীক্ষা শুরু হওয়ায় কথা থাকলেও নানা কারণে তা পিছিয়ে গেছে। একটু বিলম্ব হলেও পরীক্ষার আয়োজনের সকল প্রস্তুতি শেষ। এবছরের পহেলা ফেব্রুয়ারিতে লিখিত পরীক্ষা নেয়ার লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে প্রস্তুতি শেষ করা হয়েছে।

এসময় সচিব মনজুর কাদির বলেন, বর্তমানে এই মন্ত্রণালয়ে নতুন মন্ত্রী আসছেন, তার অনুমোদন নিতে হবে। নতুন মন্ত্রী অনুমোদন দিলে ফেব্রুয়ারিতে নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা আয়োজন করতে কোনো বাঁধা থাকবে না। পরবর্তী দুই মাসের মধ্যে মৌখিক পরীক্ষা শেষ করার চিন্তা-ভাবনা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আগামী সপ্তাহে মন্ত্রণালয়ে নিয়োগ সংক্রান্ত সভা বসার কথা রয়েছে। সেখানে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। লিখিত পরীক্ষার পর নতুন করে আরো ১০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করা হবে।

এদিকে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, অন্যান্য বারের তুলনায় এবার এই নিয়োগ পরীক্ষায় ২৪ লাখের বেশি চাকরিপ্রত্যাশী আবেদন করেছেন। যা সর্বশেষ নিয়োগে আবেদনকৃত প্রার্থীর সংখ্যার তুলনায় দ্বিগুণ। যা সারা দেশে ১২ হাজার আসনের বিপরীতে তারা এ ‘যুদ্ধে’ বসবেন।

 

 

ঢাকা, ০৭ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এসএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।