ছাত্রলীগ নেতাকে ‘ভাই’ না ডাকায় শিক্ষার্থীর পেটে লাথি


Published: 2017-02-08 17:07:45 BdST, Updated: 2019-11-19 08:39:49 BdST

রাবি লাইভ: ছাত্রলীগের র‌্যালিতে অংশ নিতে দেরি করায় এবং ভাই না ডাকায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) শিলু হোসেন নামের এক শিক্ষার্থীর পেটে লাথি মেরেছে ছাত্রলীগ নেতা। বুধবার দুপুরের দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ শামসুজ্জোহা হলে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী শিলু গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী। মারধরকারী বরজাহান আলী শামসুজ্জোহা হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, রাবি ছাত্রলীগ কর্মী ফারুক হত্যা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত র‌্যালিতে যাওয়ার জন্য জোহা হলের সাধারণ শিক্ষার্থীদের ডাকতে থাকে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এ সময় ৩০৬ নম্বর কক্ষের আবাসিক ছাত্র শিলু হোসন র‌্যালিতে অংশ নিতে দেরি হবে জানালে বরজাহান তার কক্ষে আসেন। শিলু তাকে ভাই বলে সম্বোধন না করায় পেটে লাথি এবং চড়-থাপ্পর মারে বরজাহান।

শিলু হোসেন ক্যাম্পসলাইভকে বলেন, বরজাহান আমার কক্ষে এসে জিজ্ঞেস করে তাকে চিনি কিনা। তার নামের সঙ্গে ভাই না বলায় পেটে লাথি এবং মাথায় ও গালে কিল-ঘুষি মারতে থাকে। পরে আমাকে দেখে নেয়ার হুমকি দিয়ে কক্ষ ত্যাগ করে। অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা বরজাহান আলী ক্যাম্পসলাইভকে বলেন, শিলু বেয়াদবি করায় তাকে চড়-থাপ্পর মেরেছি।

রাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু বলেন, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বলে এসেছি কাউকে জোর করে অনুষ্ঠানে আনা যাবে না। তারপপরও এ রকম একটা ঘটনা ঘটে গেছে। তাদের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি মিমাংসা করে দিয়েছি বলে জানান তিনি।

 

ঢাকা, ৮ ফেব্রুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//আইএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।