‘স্কুল ছাত্রলীগ’ নেতা আদনান হত্যায় গ্রেপ্তার ৫


Published: 2018-01-18 14:14:15 BdST, Updated: 2018-08-16 11:52:44 BdST

 

লাইভ প্রতিবেদক: চট্টগ্রামে স্কুলকেন্দ্রিক ছাত্রলীগের রাজনীতি ও গ্রুপিংয়ের বলি স্কুলছাত্র আদনান ইসফার হত্যায় জড়িত সন্দেহে পাঁচ কিশোরকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে রক্তমাখা ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে।

আটক পাঁচ কিশোর হল হাজেরা তজু ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মহিম, সাব্বির, মুনতাসির ও আবদুল্লাহ আবু সাঈদ এবং এসএসসি পরীক্ষার্থী আরমান।

গ্রেপ্তারকৃত স্কুল ছাত্রলীগ কর্মীরা হচ্ছে, আরমান, সাব্বির, মুনতাসির, মহিম ও আবু সাঈদ। তাদের মধ্যে আবু সাঈদ ছাড়া ৪ জন নগরী চান্দগাঁও হাজেরা তজু ডিগ্রী কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। তবে এ হত্যাকান্ডে ছুরিকাঘাতের মূলহোতা মঈনকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

মঈন হাজেরা তজু উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র। সে ওই স্কুলের স্কুল ছাত্রলীগ নেতা বলে জানান ওসি জসিম উদ্দিন। ওসি আরও জানান, মুনতাসিরকে নগরীর বাদুরতলা এবং বাকি ৪ জনকে ফটিকছড়ি উপজেলার এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে আটক করা হয়েছে। হত্যাকান্ডে পর তারা ফটিকছড়ি উপজেলার আত্মীয়ের বাড়িতে আত্মগোপন করেছিল। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য. গত ১৬ই জানুয়ারি বিকেলে চট্টগ্রাম মহানগর কোতোয়ালী থানার জামালখান আইডিয়াল স্কুলের সামনে কলেজিয়েট স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র আদনান ইসফার (১৫) কে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে হাজেরা তজু উচ্চ বিদ্যালয়ের স্কুল ছাত্রলীগ নেতা মঈন।

গ্রেপ্তারকৃত আরমান, সাব্বির, মুনতাসির, মহিম ও আবু সাঈদসহ আরও কয়েকজন এ সময় মঈনের সহযোগী ছিলেন। সংগৃহীত সিসিটিভি ফুটেজ দেখে খুনিদের সনাক্ত করা হয় বলে জানান ওসি জসিম উদ্দিন।

জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা জানায়, স্কুল ছাত্রলীগ নিয়ে দু‘পক্ষের বিরোধ সৃষ্টি হয়। এরমধ্যে কলেজিয়েট স্কুলে ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে আইডিয়াল স্কুলের সামনে আদনান ইসফারকে ছুরিকাঘাত করার পরিকল্পনা করে মঈন। পরিকল্পনার অংশ হিসেবে আদনানকে ছুরিকাঘাতের পর সে দৌড়ে পালানোর সময় খাস্তগীর স্কুলের সামনে পড়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর তাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

আদনানের গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলায়। খাগড়াছড়ির এলজিইডির প্রকৌশলী আখতারুল আজমের ছেলে। চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের পেছনে আম্বিয়া ভবনের একটি বাসায় মা ও বোনের সঙ্গে থাকত সে। এ ঘটনায় আদনানের পরিবারের পক্ষ থেকে কোতোয়ালী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়।

 

ঢাকা, ১৮ জানুয়ারি (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।