‍‍"সর্বোচ্চ সুফল পেতে প্রয়োজন বাস্তবমুখী নীতি"


Published: 2019-06-22 18:34:38 BdST, Updated: 2019-07-20 22:36:52 BdST

বিজনেস লাইভ: বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান বলেছেন, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর বিবিআইএন, বিসিআইএম এবং বিআরআইয়ের মতো আন্তর্জাতিক বাণিজ্য সহযোগিতা প্রয়োজন। এ সব দেশগুলোর নিজেদের অভ্যন্তরীণ বাজার আকারে ছোট।

কাঠমুন্ডুতে ‘বেল্ট এন্ড রোড ফর ডেভেলপমেন্ট এন্ড প্রসপারিটি অফ সাউথ এশিয়া’ শীর্ষক ৪র্থ আন্তর্জাতিক সম্মেলনের একটি অধিবেশনে প্যানেল আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন। দুই দিনের এই আন্তর্জাতিক সম্মেলনের আয়োজন করে নেপাল-চায়না ফ্রেন্ডশিপ ফোরাম (এনসিএফএফ)। ড. আতিউর তার আলোচনায় বিবিআইএন, বিসিআইএম এবং বিমসটেকের মতো ফোরামের মাধ্যমে বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলো কিভাবে নিজেদের মধ্যে বাণিজ্য বাড়িয়ে লাভবান হতে পারে তা তুলে ধরেন।

এসময় তিনি আরো বলেন, একই সময়ে চীনও আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে নিজের প্রভাব বাড়ানোর জন্য বেল্ট এন্ড রোড ইনিসিয়েটিভ (বিআরআই) হাতে নিয়েছে। এই বিআরআই থেকেও দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলো সুফল পেতে পারে। তবে এ জন্য চীন ও ভারতের মধ্যকার সম্পর্কের দৃশ্যমান উন্নতি ঘটতে হবে।

ড. আতিউর আরও বলেন, ভারত, চীন, জাপান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ সকল বড় বড় অর্থনীতি থেকেই বর্তমানে বাংলাদেশে বিনিয়োগ করা হচ্ছে। তবে আরও এগিয়ে যেতে চাইলে আমাদেরকে ব্যবসা সহজিকরণ সূচকে উন্নতি করাসহ পুরো বিনিয়োগ পরিবেশের উন্নয়ন ঘটাতে হবে।

নেপাল সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রী প্রদীপ কুমার গ্যাওয়ালি সম্মেলনের উদ্বোধনী অধিবেশনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নেপালে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত মিস হউ ইয়াঙ্গকি।

বাংলাদেশ সরকারের সাবেক তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি মূল নিবন্ধ উপস্থাপন করেন। উক্ত আলোচনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ফুদান বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ঝ্যাঙ জিয়াডং, ভারতের সাবেক কূটনীতিক এমকে ভদ্রকুমার এবং রাজনীতিবিদ ও বিবেকশীল পার্টির মুখপাত্র ড. সুরইয়া রাজ আচার্য।

ঢাকা, ২২ জুন (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।