ইফতারে প্রাণের মেলা


Published: 2019-05-21 14:03:12 BdST, Updated: 2019-08-20 07:39:44 BdST

বশেমুরবিপ্রবি লাইভঃ বিকেলটা যখনই ঘনিয়ে আসে, সূর্যটা যখন পশ্চিম আকাশে হেলে পড়ে তখনই তাদের আনাগোনা লক্ষ্য করা যায় রাস্তার পাশের ক্ষনস্থায়ী দোকানগুলোতে। ক্রেতা যখন সংখ্যা গরিষ্ঠ তখন বিক্রেতাদের মুখেও হাসির ছোয়া ফুটে ওঠে। হ্যাঁ আমি গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কথা বলছি। শিক্ষার্থীদের এমন ব্যস্ততার মধ্যদিয়েই শুরু হয় ইফতারির প্রস্তুতি।

আত্মশুদ্ধির এই রমজান মাসে শহর কিংবা গ্রামের মতো ইফতারের সময় অনেকটা ভিন্নরূপ দেখা যায় দেশের বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন পরীক্ষা চলে, শিক্ষার্থীরা ব্যস্ত পড়াশোনা নিয়ে। কিন্তু তার মধ্যেও রমজান মাসে ইফতার নিয়ে উৎসাহ উদ্দীপনার কমতি নেই শিক্ষার্থীদের মনে।

প্রথম রোজা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের বিভন্ন স্থানে, বিশ্ববিদ্যালয়ের আশেপাশের যায়গাগুলোতে জমে ওঠে এ আয়োজন। আসরের নামাজের পর পরই বৃত্তাকার হয়ে বসে শিক্ষার্থীরা ।গল্পের ফাঁকেফাঁকে ইফতার আয়োজনে ব্যস্ত তারা। কেউ শরবত তৈরিতে ব্যস্ত, কেউবা মুড়ি মাখানোতে, কেউ আলুর চপ, পিয়াজু, ডিমের চপ, জুস, বেগুনি, জিলাপি, টুকরো টুকরো করছে, কেউবা আজানের অপেক্ষায়, কেউ কেউ সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনায় মগ্ন।

এমন আয়োজন সম্পর্কে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী ইশতিয়াক আহমেদ বলেন "এভাবে ইফতার করলে ভালোবাসা ও ভ্রাতৃত্ব বৃদ্ধি পায়, তাছাড়া সারাদিনের ক্লান্ত দূর করতে ই আমরা প্রতিদিন এমন ভাবে ইফতার করি।
লোকপ্রশাসন বিভাগের রেহনুমা তাবাচ্ছুম বলেন " আমরা পরিবার থেকে অনেক দূরে অবস্থান করি তাই দিন শেষে আমরা সবাই একসাথে একটা পরিবারের মতো করেই ইফতারি করি যা আমাদের পরিবার থেকে দূরে থাকার কষ্ট একটু হলেও লাঘব করে"

ঢাকা, ১৮ মে (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//আরএইচ

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।