পবিপ্রবিতে বিজয়ের পংক্তিমালা ‘জয় বাংলা’


Published: 2018-12-01 18:53:02 BdST, Updated: 2018-12-11 02:40:14 BdST

পবিপ্রবি লাইভ: বিজয়। এই শব্দটি জড়িয়ে আছে মানুষের অনুভূতি আর আবেগের সঙ্গে। মানুষের হৃদয়ের সঙ্গে। আর এই বিজয় নিয়েই পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পবিপ্রবি) সাজবে নানান সাজে। নানান আয়োজনে। যার নাম ‘জয় বাংলা’। এই বিশ্বাস এখন সবখানে।

১৯৭১ সালে দীর্ঘ নয় মাসের সশস্ত্র যুদ্ধ ও ত্রিশ লাখ শহীদের এক সাগর রক্তের বিনিময়ে এসেছে স্বাধীনতা। জন্ম হয়েছে ‘বাংলাদেশ’ নামক স্বাধীন সার্বভৌম একটি রাষ্ট্রের।

পটুয়াখালী জেলায় মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি সংবলিত উল্লেখযোগ্য কোনো স্থাপনা না থাকায় মুক্তিযুদ্ধের অমর স্মৃতি জাগরিত রাখার লক্ষ্যে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন ভাইস-চ্যান্সেলর বীরমুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ড. সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেন বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে একটি মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি ভাস্কর্য নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। এ কারণে সব কিছু এখন সাজানো গুছানো হচ্ছে।

জানাগেছে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন ও জনতা ব্যাংকের অর্থায়নে ভাস্কর্যটি নির্মিত হয়। যার নকশা প্রণয়ন করেন দেশের অন্যতম ভাস্কর ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগের অধ্যাপক হামিদুজ্জামান খান। স্বাধীনতার দীপ্ত স্লোগান ‘জয় বাংলা’ এ দেশের মানুষকে যেমনিভাবে উদ্বেলিত করেছে, তেমনিভাবেই চিরদিন এই বলিষ্ঠ উচ্চারণ আপামর জনগণের কণ্ঠে ধ্বনিত হবে সেই প্রত্যাশায় ভাস্কর্যটির নাম দেওয়া হয় ‘জয় বাংলা’। নামকরণসহ সকল কাজে সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের তৎকালীন চেয়ারম্যান প্রফেসর নজরুল ইসলাম।

সেই ভাস্কর্যটির পাদদেশে লাল রঙের সিরামিক ইট দিয়ে ঘেরা ১৫ ইঞ্চি উঁচু ৪০ ফুট দৈর্ঘ্য ও ৩০ ফুট প্রস্থ বিশিষ্ট গ্রাউন্ড ফ্লোরের ওপর ১৫ ইঞ্চি উঁচু ২২ ফুট দৈর্ঘ্য ও ১৬ ফুট প্রস্থ বিশিষ্ট মাটির আরেকটি মেঝে তৈরি করা হয়েছে। এর ঠিক মাঝে কালো গ্রানাইট পাথর দ্বারা সুসজ্জিত একটি আরসিসি বেদির ওপর স্থাপিত হয়েছে ১৯ ফুট উঁচু স্টেইনলেস স্টিলের তৈরি প্রতীকী এক মুক্তিযোদ্ধা।

যার কাঁধে ঝোলানো আছে একটি রাইফেল, মাথায় গামছা বাঁধা ও হাতে রয়েছে স্বাধীন বাংলার মানচিত্র সংবলিত লাল সবুজের পতাকা। পবিপ্রবি'র প্রশাসনিক ভবনের সম্মুক্ষে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিকে ধরে রাখার জন্য নির্মিত মুক্তিযুদ্ধের ভাস্কর্য ‘জয় বাংলা’ ২০১১ সালের ৩০ মার্চ শুভ উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের(ইউজিসি)সে সময়কার চেয়ারম্যান প্রফেসর নজরুল ইসলাম।

প্রসঙ্গত পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বুকে ‘জয় বাংলা’ দাঁড়িয়ে আছে বিজয়ের অনুপ্রেরণা হয়ে। ‘জয় বাংলা’ দাবি আদায়ের স্লোগান। এজন্যই বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীদের সকল প্রকার দাবি আদায় ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় আন্দোলন-সংগ্রামের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে ‘জয় বাংলা চত্বর’।

 

ঢাকা, ০১ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//সিএস

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।