চুয়েটে ভর্তির আবেদন করবেন যেভাবে, পরীক্ষা ১২ অক্টোবর


Published: 2019-08-08 15:48:29 BdST, Updated: 2019-08-23 02:57:18 BdST

চুয়েট লাইভ: চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ১২ অক্টোবর, শনিবার অনুষ্ঠিত হবে। ওই দিন সকাল ১০টায় ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়ে চলবে বেলা ১টা পর্যন্ত। এছাড়াও মুক্তহস্ত অংকন একই দিন বিকাল ২টা ৩০ মিনিট থেকে শুরু হয়ে চলবে বিকেল ৪টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সূত্রে জানা গেছে, ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য অনলাইনে আবেদনপত্র গ্রহণ শুরু হবে আগামী ২৫ আগস্ট থেকে। অনলাইনে আবেদনপত্র গ্রহণ শেষ হবে ১৫ সেপ্টেম্বর।

‘‘A’’ লেভেল ও বিদেশী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রার্থীদের আবেদনপত্র গ্রহণ করার সময় ২৫ আগস্ট হতে শুরু হয়ে আবেদন গ্রহণের শেষ সময় ১৫ সেপ্টেম্বর। ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের যোগ্য প্রার্থীদের রোলসহ নামের তালিকা প্রকাশ করা হবে আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর। মেধানুযায়ী ভর্তির জন্য নির্বাচিত এবং অপেক্ষমান প্রার্থীদের নামের তালিকা প্রকাশ করা হবে আগামী ২৭ অক্টোবর।

এদিকে এবার নতুন চালু হওয়া দুটি বিভাগে ৩০জন করে মোট ৬০ জন ভর্তি হতে পারবে। বিভাগ দুটি হলো Biomedical Engineering এবং Materials Science and Engineering।

বিশ্ববিদ্যলয়ের প্রশাসনিক ভবনের কাউন্সিল কক্ষে একাডেমিক কাউন্সিলের ১১৪তম (জরুরি) সভায় এসব সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন একাডেমিক কাউন্সিলের সভাপতি এবং চুয়েটের ভিসি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম। সভায় একাডেমিক কাউন্সিলের সকল সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

‘‘A’’ লেভেল পাশ এবং বিদেশী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে পাশকৃত প্রার্থী ব্যতীত অন্যান্যদের আবেদন অনলাইনের মাধ্যমে গ্রহণ করা হবে। যে সকল ছাত্র-ছাত্রী শুধুমাত্র ২০১৯ সালে উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় পাশ করেছে অথবা ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরের পরে ‘‘A’’ লেভেল সার্টিফিকেট প্রাপ্ত হয়েছে, ভর্তি নির্দেশিকার অন্যান্য শর্তপূরণ সাপেক্ষে তারাই ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আবেদন করতে পারবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ে সর্বমোট ৮৯০টি আসন রয়েছে। এ ছাড়াও রাখাইন সম্প্রদায়ের জন্য ০১টি, পার্বত্য চট্টগ্রাম ও অন্যান্য জেলার নৃ-গোষ্টীর (উপজাতি) জন্য ১০টি সহ অতিরিক্ত ১১টি আসন সংরক্ষিত আছে। ভর্তির জন্য অন্য কোন ধরনের আসন সংরক্ষিত নেই।

বাংলাদেশের যে কোন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড / মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড / কারিগরি শিক্ষা বোর্ড থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীকে ২০১৬ অথবা ২০১৭ সালের মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় কমপক্ষে জিপিএ ৪.০০ পেয়ে পাশ হতে হবে অথবা সমমানের পরীক্ষায় কমপক্ষে সমতুল্য গ্রেড পেয়ে পাশ হতে হবে।

বাংলাদেশের যে কোন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড / মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড / কারিগরি শিক্ষা বোর্ড থেকে উচ্চ মাধ্যমিক / আলীম / সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীকে গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন বিষয়ের প্রত্যেকটিতে আলাদাভাবে কমপক্ষে গ্রেড পয়েন্ট ৪.০০ ও ইংরেজি বিষয়ে কমপক্ষে গ্রেড পয়েন্ট ৩.৫০ পেয়ে পাশ করতে হবে এবং গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন ও ইংরেজীতে মোট গ্রেড পয়েন্ট কমপক্ষে ১৭.৫০ পেতে হবে। ইংরেজী মাধ্যম / বিদেশী শিক্ষা বোর্ড থেকে সমমানের পরীক্ষায় উক্ত বিষয়সমূহে কমপক্ষে সমতুল্য গ্রেড পেয়ে পাশ হতে হবে।

ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী GCE ‘O’ লেভেল এবং ‘‘A’’ লেভেল পাশ করে থাকলে তার ক্ষেত্রে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহনের জন্য GCE ‘O’ লেভেল পরীক্ষায় গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন ও ইংরেজীসহ কমপক্ষে পাঁচটি বিষয়ে কমপক্ষে ‘‘B’’ গ্রেড পেয়ে পাশ হতে হবে। GCE ‘‘A’’ লেভেল পরীক্ষায় পদার্থ বিজ্ঞান, রসায়ন ও গণিতে পৃথক পৃথকভাবে কমপক্ষে ‘‘B’’ গ্রেড পেয়ে পাশ হতে হবে।

দেশী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে পাশ করা এবং GCE ‘O’/ ‘‘A’’ লেভেল পাশ করা ছাত্র-ছাত্রীরা অনলাইন এর মাধ্যমে আবেদন করতে পারবে না। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট http://student.cuet.ac.bd/admission2019 অথবা http://www.cuet.ac.bd/admission থেকে আবেদন ফরম ডাউনলোড করে নির্ধারিত ফি সভাপতি, ভর্তি কমিটি, সোনালী ব্যাংক লিমিটেড, সিইউইটি শাখা, চট্টগ্রাম এর অনুকুলে ডিমান্ড ড্রাফ্ট/পে-অর্ডার আবেদনপত্রের সাথে সংযুক্ত করে রেজিস্ট্রার, চুয়েট, চট্টগ্রাম-৪৩৪৯ ঠিকানায় জমা দিবে।

সকল পরীক্ষার্থী চুয়েট ওয়েবসাইট http://student.cuet.ac.bd/admission2019 অথবা http://www.cuet.ac.bd/admission হতে ভর্তি নির্দেশিকা ২০১৯-২০ ডাউনলোড করে নিতে পারবে। ভর্তি নির্দেশিকায় উল্লিখিত নিয়মাবলী ছাত্র-ছাত্রীদেরকে অনুসরণ করতে হবে।

 

ঢাকা, ০৮ আগস্ট (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।