‘স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ: চেপ্টার ওয়ান' এর উদ্বোধন


Published: 2019-03-08 19:39:34 BdST, Updated: 2019-08-18 19:52:33 BdST

আইটি লাইভ: জমকালো আয়োজনে ‘স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ: চেপ্টার ওয়ান' অনুষ্ঠিত হয়েছে। শিক্ষার্থীদের উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে ‘স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ: চেপ্টার ওয়ান' আয়োজন করা হয়েছে। তরুণদের উদ্ভাবনী উদ্যোগ ও স্টার্টআপকে স্বাগত জানাতে আইসিটি বিভাগের ‘ইনোভেশন ডিজাইন অ্যান্ড এন্ট্রাপ্রেনারশিপ একাডেমি’ (আইডিয়া) প্রজেক্ট এর সার্বিক সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত হয়।

তারুণ্যের প্লাটফর্ম ইয়াং বাংলার উদ্যোগে চলছে এই কার্যক্রম। শুক্রবার আইসিটি টাওয়ারে কেন্দ্রীয় সমন্বয় কর্মশালায় তার উদ্বোধন ঘোষণা করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, আইডিয়া প্রকল্পের মাধ্যমে ২০২১ সাল নাগাদ ১ হাজারের বেশি স্টার্টআপ চালু করা হবে। বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের অনেক আইডিয়া থাকে। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় জীবন পার করার পর অধিকাংশ সময় তা আর বাস্তবায়ন হয় না। সে কারণেই বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে আমাদের ‘স্টুডেন্ট টু স্টার্ট আপ’ আয়োজন।

প্রকল্প পরিচালক সৈয়দ মজিবুল হক জানান, যে সব স্টার্ট আপ এর প্রডাক্ট ভ্যালু আছে তাদের জন্য এক কোটি টাকা পর্যন্ত সিডি মানি দিয়ে বিনিয়োগ করবে স্টার্ট আপ বাংলাদেশ লিমিটেড। আমরা উদ্যোক্তাদের খুঁজে বের করতে এবং সম্ভাবনাময় উদ্যোগগুলোকে সহায়তা করতে কাজ করে যাচ্ছি।

জানা গেছে, আইসিটি বিভাগে আইডিয়া প্রজেক্টের যাত্রা শুরু। ইয়াং বাংলাকে সাথে নিয়ে আইডিয়া প্রজেক্টে দেশের আট বিভাগের ৪০ বিশ্ববিদ্যালয়ে চালাবে ‘স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ: চেপ্টার ওয়ান’-এর কার্যক্রম। প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব শিক্ষার্থী ছাড়াও অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অনলাইন রেজিস্ট্রেশন করে প্রতিযোগিতায় আবেদন করতে পারবেন। সেখানে ইয়াং বাংলার ক্যাম্পাস অ্যাম্বাসেডরদের সহায়তায় পরিচালিত হবে প্রতিযোগিতা।

এখান থেকে গড়ে তিনটি দলকে বাছাই করা হবে। এভাবে ৪০ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাছাইকৃত ১২০ দল নিয়ে প্রথমবারের মত ‘জাতীয় স্টার্টআপ ক্যাম্প’ সাভারে অনুষ্ঠিত হবে। সেখান থেকে দর্শক ভোট এবং বিচারকদের ভোটে বাছাই করা হবে মূল প্রতিযোগিতার ৩০ স্টার্টআপ।

আইডিয়া প্রকল্পের বাছাই কমিটি এবং অন্যান্য বিচারকদের সাহায্যে ১০ স্টার্টআপ জাতীয় পর্যায়ে বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করা হবে। এই দলগুলো নিজেদের পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য অর্থ ও পরামর্শসহ যাবতীয় সহায়তা পাবে আইডিয়া প্রজেক্ট থেকে। এর পাশাপাশি বাকি ২০টি দলকে গ্রুমিং এর নির্বাচন করা হবে। সেই সঙ্গে ৩০টি দলের জন্য ইয়াং বাংলার প্লাটফর্ম তো থাকছেই।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, আইসিটি বিভাগের সচিব এনএম জিয়াউল আলম, সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) এর কো-অর্ডিনেটর তন্ময় আহমেদ, আইডিয়া প্রকল্পের প্রজেক্ট ডিরেক্টর সৈয়দ মজিবুল হক এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) এর নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব।

 

ঢাকা, ০৮ মার্চ (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।