"জলবায়ু ঝুঁকি মোকাবেলায় ক্লাইমেট ইঞ্জিনিয়ারিং"


Published: 2018-12-17 21:06:01 BdST, Updated: 2019-07-17 19:26:57 BdST

আইটি লাইভ: জলবায়ু ঝুঁকি মোকাবেলার ক্লাইমেট ইঞ্জিনিয়ারিং চালু করা হচ্ছে। এটি এমন একটি ইঞ্জিনিয়ারিং যা বাতাস থেকে সরাসরি কার্বন-ডাই-অক্সাইড শুষে নিয়ে তা মাটিতে জমায়। পরে সেই কার্বন ব্যবহার করে বানানো হয় সার। বিশাল গ্রিন হাউজে সেই সার চাষের কাজে লাগানো হচ্ছে অথবা মাটির নিচে জমা রাখা হচ্ছে।

জলবায়ু ঝুঁকি মোকাবেলায় রাখতে পারবে বিশেষ ভূমিকা। তবে এসব প্রযুক্তির আছে কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া। আর আছে এটা নিয়ে বাণিজ্যিক ও রাজনৈতিক অপব্যবহারের ঝুঁকি। ফলে এই ধরনের প্রযুক্তি জলবায়ু গবেষকদের কপালের ভাঁজ পুরোপুরি সরাতে পারছে না।

এ বিষয়ে সমুদ্রবিজ্ঞানী প্রফেসর আন্দ্রেয়াস ওশলিস মনে করেন, কার্বন-ডাই-অক্সাইড ভ্যাকুয়াম ক্লিনার অবশ্যই ভালো কাজ করে। কিন্তু বায়ুমণ্ডলের অতিরিক্ত কার্বন-ডাই-অক্সাইড শুষে নিতে এর আকার আরো কয়েকগুণ বড় হতে হবে। এ ছাড়া মাটির নিচে দীর্ঘকাল কার্বন-ডাই-অক্সাইড রাখার ব্যবস্থাও করতে হবে। সে জন্যও প্রযুক্তিগতভাবে উন্নয়ন করা দরকার।

আন্দ্রেয়াস ওশলিস বলেন, সবই ঠিক আছে। কিন্তু প্রশ্ন হলো, আমরা কি সত্যি এমনটা চাই? সমাজে এর পক্ষে সমর্থন আদায় করা কি সম্ভব?

তার মতে, মাটির নিচে কার্বন-ডাই-অক্সাইড রাখার বিষয়টির সঙ্গে কিছু ভয়ভীতি জড়িয়ে আছে। এর ফলে তীব্র ভূমিকম্প ঘটতে পারে অথবা ভূগর্ভস্থ পানি দূষিত হতে পারে। মোট কথা, তার পরিণতি সম্পর্কে আজ ধারণা করা কঠিন।

এবিষয়ে আন্দ্রেয়াস ওশলিস আরো জানান, ‘বৈশ্বিক উষ্ণায়ন যে নাটকীয় মাত্রায় বেড়ে চলেছে, তা আমরা দেখতে পাচ্ছি। ক্লাইমেট ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের প্রয়োগ ছাড়া জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলার লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করা সম্ভব নয়। তার মতে, সব রকম পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সত্ত্বেও এই প্রযুক্তি ব্যবহার করতে হবে অন্যথায় জলবায়ু সংক্রান্ত লক্ষ্যমাত্রা ত্যাগ করতে হবে।

কৃত্রিমভাবে জলবায়ুর ওপর হস্তক্ষেপ করলে অন্য বিপর্যয় ঘটার আশঙ্কা রয়েছে। কিছু শক্তি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যেও এই প্রযুক্তির অপব্যবহার করতে পারে। উলরিকে নিমায়ার বলেন, এই প্রযুক্তির রাজনৈতিক প্রয়োগ নিয়েই আমার সবচেয়ে বড় দুশ্চিন্তা। সবাই রাজি হবে এবং মেনে চলবে, এমন আন্তর্জাতিক বিধিনিয়ম স্থির করাও কঠিন। ব্যক্তিগতভাবে আমার আশঙ্কা হলো, কোনো এক সময় এর মাধ্যমে যুদ্ধ লেগে যাবে।

 

 

ঢাকা, ১৭ ডিসেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।