যেকারণে স্থগিত শিশুর জিন পরিবর্তনের পরীক্ষা


Published: 2018-11-29 19:59:55 BdST, Updated: 2018-12-11 00:28:20 BdST

আইটি লাইভ: চীনা একদল গবেষক বিজ্ঞানী শিশুর জিন পরিবর্তনের পরীক্ষা শুরু করে ছিলেন। তাদের এই গবেষণায় নৈতিকতার দিক থেকে অত্যন্ত বিতর্কিত হওয়ায় পরীক্ষা-নিরীক্ষা স্থগিত ঘোষণা করেছেন তারা। শিশুর জিন পরিবর্তন নিয়ে গবেষণার বিষয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে কঠোর সমালোচনার ঝড় উঠার পর তারা এ সংক্রান্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষা স্থগিতের ঘোষণা দিয়েছেন। খবর এএফপি’র।

বিশ্বে এই প্রথমবারের মতো শিশুর জিন পরিবর্তনের পরীক্ষায় সফল হয়েছেন বলে দাবি করেছেন গবেষকরা। জিন হচ্ছে ক্রোমোজমের অন্তর্গত একক যা ব্যক্তির কোনো নির্দিষ্ট বংশানুক্রমিক বৈশিষ্ট্যকে নিয়ন্ত্রণ করে।

হি জিয়ানকুই হংকং হাসপাতালে জনাকীর্ণ এক সংবাদ সম্মেলনে ওই গবেষণার প্রধান জানান, এইচআইভি আক্রান্ত এক বাবার জন্ম নেয়া দুই শিশুর ডিএনএ পরিবর্তনে তিনি সফল হয়েছেন। মোট আট দম্পতি এই পরীক্ষা চালানোর জন্য তাদের নাম লেখালেও এ সংক্রান্ত পরীক্ষা স্থগিত করার আগে এক দম্পতি তালিকা থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে।

এসময় তিনি জানান, ‘অপ্রত্যাশিতভাবে এ পরীক্ষার ফলাফল ফাঁস হওয়ায় আমি ক্ষমা প্রর্থনা করছি।’ ‘বর্তমান পরিস্থিতির কারণে এটির ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।’

 


ঢাকা, ২৯ নভেম্বর (ক্যাম্পাসলাইভ২৪.কম)//এমআই

ক্যাম্পাসলাইভ২৪ডটকম-এ (campuslive24.com) প্রচারিত/প্রকাশিত যে কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা আইনত অপরাধ।